পাট থেকে বাণিজ্যিকভাবে ভিসকস সুতা তৈরির সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে সফলতা

দেশেই পাট থেকে তৈরি হবে, ভিসকস সুতা। আন্তর্জাতিক মান ও বাণিজ্যিক সম্ভাব্যতা যাচাইয়েও মিলেছে সফলতা। যার প্রতিবেদন পাওয়ার পরই বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন শুরু করবে সরকার। স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে নরসিংদীর ঘোড়াশাল।

 

ভিসকস এক ধরণের সুক্ষ সুতা। যা তৈরি বিভিন্ন ধরনের উদ্ভিদের সেলুলোজ থেকে। বিশ্বব্যাপী বস্ত্রশিল্পের ৬৭ ভাগ কাপড় তৈরি হয় এই সুতা দিয়ে, বাকিটা তুলা দিয়ে। ভিসকসে বাংলাদেশ পুরোপুরি আমদানি নির্ভর।

তবে পোশাক শিল্পে আশার সঞ্চার করেছে এদেশের বিজ্ঞানীরা। পাট থেকে সেলুলোজ নিয়ে তৈরি করেছে এই ভিসকস। এ নিয়ে প্রথম কাজ শুরু করে চীন ১৯৯৬ সালে। তবে পুরোপুরি সফল হবার আগেই বন্ধ হয়ে যায় তাদের কাজ। দেশে পাট সহজলভ্য হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দেন এ নিয়ে গবেষণা চালাতে।

বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের এই পরীক্ষাগারে ১৩-১৪ জনের একটি গবেষকদলের তত্ত্বাবধানে উদ্ভাবিত হয় পাটজাত ভিসকস। আন্তর্জাতিক মান ও বাণিজ্যিক সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজও প্রায় শেষ। ফিনল্যান্ড, সুইডেন আর ফ্রান্সের তিনটি প্রতিষ্ঠান করছে এই কাজ। শিগগিরই আসছে প্রতিবেদন।

দেশে বছরে দেড় হাজার কোটি টাকার ভিসকস আমদানি হয় পোশাকশিল্পে। তাই পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরীক্ষামূলক ভিসকস উৎপাদনে যাওয়া হবে। প্রাথমিক লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৪০ হাজার টন।

গবেষকরা বলছেন, পোশাকশিল্পের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই ভিসকস...পাট ছাড়াও আর কী কী উদ্ভিজ্জ উপাদান দিয়ে তৈরি করা যায়, তা নিয়েও চলছে গবেষণা।

 

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save