নানা কারণে হুমকিতে হালদার গাঙ্গেয় ডলফিন

চট্টগ্রামের হালদা নদীতে গেল ছয়মাসে বিপন্ন প্রজাতির ১৮টি গাঙ্গেয় ডলফিনের মৃত্যু হয়েছে আঘাতজনিত কারণে। একের পর এক ডলফিনের মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধানে সরকার গঠিত বিশেষজ্ঞ কমিটির প্রতিবেদনে এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, নদীতে চলাচলকারী বালুর ড্রেজারসহ নৌযানই এই আঘাতের উৎস। তাই ড্রেজার বন্ধসহ ডলফিন রক্ষায় ছয়টি সুপারিশ দিয়েছে কমিটি।

 

দেশে রুই জাতীয় মাছের একমাত্র প্রাকৃতিক প্রজননক্ষেত্র, হালদা নদী। যেটি মাছের ডিম ছাড়ার পাশাপাশি পরিচিত বিপন্ন প্রজাতির গাঙ্গেয় ডলফিনের বিচরণক্ষেত্র হিসেবে।
তবে হালদা নদীতে হঠাৎ করে ডলফিনের মড়ক ভাবিয়ে তোলে পরিবেশবাদী সব মহলকে। কেননা, গেল ১ বছরে অন্তত ১৮টি ডলফিনের মৃত্যু হয়। এনিয়ে নানা তথ্য সামনে আনা হলেও ডলফিনের মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে গেল মাসে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করে সরকার।
হালদা নদীর বিভিন্নস্থান সরেজমিন পর্যবেক্ষণ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণাগারে রাখা মৃত ডলফিনের ময়নাতদন্তসহ নানা পরীক্ষা শেষে গেল ২৭ মার্চ প্রতিবেদন দাখিল করে এই কমিটি। যাতে বলা হয়, আঘাতজনিত কারণেই মারা গেছে ডলফিন। ডলফিনের আঘাতের একমাত্র কারণ নদীজেুড়ে দাপিয়ে বেড়ানো বালু তোলার ড্রেজারসহ নানা যান্ত্রিক নৌযান। তাই ডলফিন রক্ষায় এসব নৌযান বন্ধসহ ৬ দফা সুপারিশ করে বিশেষজ্ঞ কমিটি।   
ডলফিন বাঁচাতে এসব সুপারিশ বাস্তবায়নের উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন মৎস্য বিভাগের কর্মকর্তারা। বিভিন্ন গবেষণার তথ্য অনুযায়ী হালদা নদীতে রয়েছে দেড় থেকে দুশো গাঙ্গেয় ডলফিন। 


চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save