রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসন: ২২ টি সিদ্ধান্ত গৃহীত

রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসন ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনায় ২২টি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মুখ্য সচিবের নেতৃত্বে, ঢাকার জাতিসংঘে সংশ্লিষ্ট সব সংস্থার উপস্থিতিতে এ সব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। যাতে ১৪ হাজার আশ্রয় কেন্দ্রসহ, খাদ্য ও ত্রাণ মজুতের জন্য ১৪টি অস্থায়ী গুদাম নির্মাণের কথা বলা হয়।

মিয়ানমানর সেনাবাহিনীর নির্যাতন থেকে বাঁচতে, এরই মধ্যে বাংলাদেশের আশ্রয় নিয়েছেন চার লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা। যাদের জন্য মানবিক সহায়তা নিশ্চিতে, জাতিসংঘ ও এর সহযোগী সংস্থারগুলোর সাথে বৈঠক করে সরকার। এতে শরণার্থীদের পুনর্বাসন ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনাসহ ২২টি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

যার মধ্যে রয়েছে কক্সবাজারের কুতুপালংয়ে ২ হাজার একর জায়গায়, ১৪ হাজার আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ। যার প্রতিটিতে থাকবে, ৬টি করে পরিবার। আগামী ২৪শে সেপ্টেম্বরের মধ্যেই  এগুলো তৈরি করার কথা, যার কাজ এরই মধ্যে শুরু হয়েছে।

যেখানে আগামী ৪ মাস ধরে চার লাখ রোহিঙ্গাকে খাদ্য সররাহ করবে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি। এজন্য শিবিরের কাছাকাছি নির্মাণ করা হবে, ১৪টি অস্থায়ী গুদাম।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, বিদেশ থাকা আসা ত্রাণ গ্রহণ করবে সশস্ত্র বিভাগ। যতদিন পর্যন্ত নির্দষ্ট আশ্রয় কেন্দ্রে শরণার্থীদের ঠাঁই না হচ্ছে, ততদিন তাদের খাদ্য সরবরাহে সহযোগিতা করবে সশস্ত্র বাহিনীই।
আর এ কর্মসূচি চালু রাখতে, কী পরিমাণ ত্রাণ দরকার তা ঠিক করবে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি।

জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তর ৫০০টি শৌচাগার নির্মাণ করবে। আর ইউএনএইচসিআর নির্মাণ করবে, ৮ হাজার শৌচাগার। স্থানীয় প্রশাসন ব্যবস্থা করবে বিশুদ্ধ পানির। শেল্টারে বিদ্যুৎ সরবরাহের বিষয়টি দেখার জন্য দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়কে।

বৈঠকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে, শরণার্থীক্যাম্পে পরিবার পরিকল্পনায়। এছাড়া নবজাতকদের জন্ম সনদ দেয়ার বিষয়ে, সর্বোচ্চ সতর্ক থাকতে দিক নির্দেশনা দেয়া হবে ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের। একইভাবে নির্বাচন কমিশনকেও নির্দেশনা দেওয়া হবে, জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়ার ক্ষেত্রে বাড়তি সতর্ক থাকতে।

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save