জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবে প্রশান্ত মহাসগরীয় অঞ্চলে দুর্যোগ বাড়বে

জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবে, বাংলাদেশসহ প্রশান্ত মহাসগরীয় অঞ্চলে বাড়বে, সিডর, আইলার মতো প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড়। ২১শ' সাল নাগাদ প্লাবিত হবে, দেশের ৬০ ভাগ এলাকা। জলবায়ু ইস্যুতে, এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক-এডিবি এবং জার্মান গবেষণা সংস্থা- পোটসডাম ইন্সটিটিউটে'র গবেষণা প্রতিবেদনে উঠে এসেছে, এমন তথ্য। এতে বলা হয়, আগামি তিন বছরে জলবায়ু পরিবর্তনের লাগাম না টানতে পারলে, ভয়াবহ পরিণতি অপেক্ষা করছে, এশীয় অঞ্চলের মানুষের জন্য।

সিডর, আইলা আর সাম্প্রতিক পাহাড় ধসে শত শত মানুষের প্রাণহানি। প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেন নিত্যসঙ্গি বাংলাদেশের। তারওপর প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে মাত্রাতিরিক্ত বন্যায় প্লাবিত নিম্নাঞ্চল।

জলবায়ুর বিরুপ প্রভাব নিয়ে, এশিয় উন্নয়ন ব্যাংকের প্রতিবেদন বলছে, এসব দুর্যোগ প্রকৃতির ধ্বংসযজ্ঞের পূর্বাভাস মাত্র। আগামীতে আরও ভয়াবহ পরিণতি অপেক্ষা করছে, বাংলাদেশ ও এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের বাসিন্দাদের জন্য। এডিবির দাবি, জলবায়ুর বিরুপ প্রভাবে বাংলাদেশের এক চতুর্থাংশ এলাকাই বর্তমানে বছরজুড়ে পানিবন্দি থাকে। আর ২১শ সাল নাগাদ প্লাবিত হবে, বাংলাদেশের ৬০ ভাগ এলাকা।

এডিবি ও পোটসডাম ইনস্টিটিউটে'র যৌথ গবেষণা বলছে, বৈশ্বিক উষ্ণতা এক ডিগ্রি বাড়লে সমুদ্র স্তরের উচ্চতা বাড়বে সাড়ে ৭ ফুট। এরইমধ্যে সাগর স্তরের উচ্চতা বেড়েছে, ১৯ সেন্টিমিটার। জলবায়ুর বিরুপ প্রভাবে সরাসরি ক্ষতিগ্রস্ত হবে, বাংলাদেশসহ এশিয়ার প্রায় ৬ কোটি মানুষ। কক্সবাজার, ভোলার মত দক্ষিণ এশিয়ার উপকূলীয় শহরগুলোর জন্য বছরে, ক্ষতির পরিমাণ দাড়াতে পারে, ৫ হাজার ২শ কোটি ডলারে। 
 
গবেষকরা বলছেন, ভয়াবহ এই পরিস্থিতি মোকাবেলায় ২০২০ সালের মধ্যেই কার্বণ নি:সরণের মাত্রা কমিয়ে আনতে হবে। জীবাশ্ম জ্বালানি ছাড়াও, বায়ু এবং সৌরশক্তি ব্যবহারের উপর জোর দিয়েছেন, তারা। এছাড়া শিল্প কারখানায় কার্বণ নি:স্বরণের হার কমাতে ৬ দফা প্রস্তাবও দিয়েছে, এডিবি। 






চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save