জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদে আজও উত্তাল ফিলিস্তিন

জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদে আজও উত্তাল ফিলিস্তিন। সোমবার, গাজা সীমান্তে ইসরায়েলের নির্বিচার গুলিতে ৬০ জনের প্রাণহানির ঘটনায় ফিলিস্তিনজুড়ে চলছে ধর্মঘট। হামলায় নিন্দার ঝড় বইছে বিশ্বজুড়ে। একে যুদ্ধাপরাধ আখ্যা দিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস অভিযোগ করেছেন, জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণা দিয়ে মূলত এ পবিত্র শহরে মার্কিন উপনিবেশই কায়েম করলো যুক্তরাষ্ট্র।

জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী স্বীকৃতি দিয়ে ট্রাম্প কন্যার ঘোষণায় ইসরায়েলজুড়ে শুরু হয়, বাঁধভাঙা উচ্ছাস।

কিন্তু ঠিক বিপরীত চিত্র ফিলিস্তিনজুড়ে। আল-আকসা মসজিদে আজান বন্ধ করে দিয়েছে, ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ। মসজিদের আশপাশে প্রবেশেও রয়েছে নিষেধাজ্ঞা। গাজা সীমান্ত ও পশ্চিম তীরে সোমবার ইসরায়েলি সেনাদের নির্বিচার গুলিতে একের পর এক লুটিয়ে পড়েন, নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিরা। চলে বিমান হামলাও। 

ফিলিস্তিনি নেতাদের অভিযোগ, মার্কিন ইন্ধনেই এমন বর্বরতার সাহস পেয়েছে ইসরায়েল। 

এতদিন ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি দখলদারিত্বে সহায়তা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এখন নিজেরাই উপনিবেশ গড়ে তুলছে। ইসরায়েলিরা জেরুজালেমকে পূর্বপুরুষের ভিটে দাবি করে মিথ্যাচার করছে।

ইহুদিদের এই নিপীড়নের কড়া জবাব দেয়া হবে। যারা ইসরায়েলকে সহায়তা আর সমর্থন দিচ্ছে তাদেরও ছাড় দেয়া হবে না।

গাজায় নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা বন্ধের দাবি জানিয়েছে, ওআইসি, জাতিসংঘ ও অ্যামনেস্টি। 

নিরস্ত্র মানুষের ওপর যেভাবে নির্বিচার গুলি চালানো হয়েছে, তা পরিস্কারভাবে যুদ্ধপরাধের শামিল ও আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন। হেগের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতকে তদন্তের আহ্বান জানাচ্ছি।

গাজায় ইসরায়েলি বাহিনী যেভাবে নির্বিচারে গুলি ছুড়েছে; তাতে উদ্বিগ্ন জাতিসংঘ। জেরুজালেম নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে আলোচনার ভিত্তিতে। 

ফিলিস্তিনিদের ওপর নিপীড়নের ঘটনায় নিন্দার ঝড় বইছে, বিশ্বজুড়ে। বিক্ষোভ হয়েছে তুরস্ক, লেবানন, জর্ডানসহ বিভিন্ন প্রান্তে। নেতানিয়াহুকে জঙ্গি বলছেন, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান।

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save