মার্কিন কংগ্রেসের শুনানিতে তোপের মুখে মার্ক জাকারবার্গ

ফেসবুকের তথ্য গোপনীয়তা নীতি নিয়ে মার্কিন সিনেটের শুনানিতে তোপের মুখে পড়েছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটির প্রধান নির্বাহী, মার্ক জাকারবার্গ। এ সময় রোহিঙ্গা ইস্যুতে আইনপ্রণেতাদের প্রশ্নবাণেও জর্জরিত হন তিনি। এ সব প্রশ্নের সরাসরি জবাব এড়িয়ে, প্রতিরোধে ৩টি প্রস্ততির কথা জানান, ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা। স্থানীয় সময় বুধবার সকালে হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভের শুনানিতে যোগ দেবেন তিনি।

সিনেটে শুনানির শুরুতেই ক্ষমা চান, ফেসবুকের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। জানান, নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপ তদন্তে রবার্ট মুয়েলারকে সহায়তা করছে ফেসবুক। এছাড়া, ভুয়া অ্যাকাউন্ট শনাক্তের প্রক্রিয়া আরও উন্নত করা হচ্ছে।

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা গণহত্যা ও সহিংসতা উস্কে দেয়ায় ফেসবুক ব্যবহার হয়েছে। অথচ বিষয়টি রোধে তেমন কোনো ভূমিকা ছিলো না সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটির। জাতিসংঘের এমন অভিযোগ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে, সরাসরি জবাব দেননি জাকারবার্গ। তবে, প্রতিরোধে ৩ ধরনের প্রস্তুতির কথা জানান তিনি।

মিয়ানমারে যা ঘটছে তা ভয়াবহ। তাই হেইট ক্রাইম রোধে মিয়ানমারের স্থানীয় ভাষা জানা লোকদের নিয়োগ, সুশীল সমাজের সাথে সমন্বয় এবং মিয়ানমারের জন্য বিশেষ পণ্য সেবা নীতি তৈরির পদক্ষেপ নিচ্ছে ফেসবুক।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তথ্যের অপব্যবহার ও কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা ইস্যুতেও দায় এড়িয়ে গেছেন জাকারবার্গ।  

কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা ইস্যুতে প্রশ্নোত্তরের অনেক ক্ষেত্রে তাকে অজ্ঞ মনে হয়েছে। কিছু ক্ষেত্রে তার কাছে সঠিক তথ্যও ছিল না।

তবে, শেয়ার বাজারে ইতিবাচক অবস্থানে ফিরেছে ফেসবুক। গেল দু বছরে প্রথম বারের মত সর্বোচ্চ দর উঠেছে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার।  

এলএইচ/বিএস

Last modified on 11-04-2018 05:05:58 PM

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save