কাতালান সংকটে স্বাধীনতার দাবি, বড় ধরণের বিক্ষোভ বার্সেলোনায়

স্বাধীনতার দাবি ঠেকাতে স্পেনের কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তে নতুন সংকটের মুখে কাতালোনিয়া পরিস্থিতি। শনিবারই কাতালান সরকারের শীর্ষ ব্যক্তিদের বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন, স্প্যানিশ প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাহয়। অবশ্য কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত না মানার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, অঞ্চলটির প্রেসিডেন্ট কার্লোস পুইজ্জেমন। স্প্যানিশ মন্ত্রিপরিষদের সিদ্ধান্তকে সেনা অভ্যূত্থানের সামিল বলেছেন তিনি। স্বাধীনতার দাবিতে বড় ধরনের বিক্ষোভ হয়েছে বার্সেলোনায়।

 

স্থগিত করা হবে কাতালোনিয়ার স্বায়ত্তশাসন। স্পেনের কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রীসভার বৈঠকে এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বার্সেলোনার রাস্তায় নামে লাখো মানুষ। সংখ্যার হিসাবে যা সাড়ে চার লাখেরও বেশি। দাবি উঠে, স্বাধীনতার।

'আমরা কখোনোই স্পেন সরকারের বিরোধিতা করিনি। কিন্তু এখন আর স্পেন সরকারের সাথে একমত নই। তারা আমাদের স্বাধীনতা খর্ব করছে।' 

'স্পেন সরকার ১৫৫ ধারা জারি করলে তা হবে আত্মহত্যার সামিল। কারণ কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার পক্ষে মানুষের সংখ্যা লাখো ছাড়িয়েছে।' 

শনিবার স্পেনের মন্ত্রীসভার বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাহয় জানান, বরখাস্ত করা হবে আঞ্চলিক পার্লামেন্টে'র প্রেসিডেন্ট কার্লোস পুইজ্জেমন'সহ শীর্ষ পদে থাকা নেতাদের। অনুমোদনের জন্য এই প্রস্তাব তোলা হবে পার্লামেন্টে। যেখানে বিতর্কের পর হবে ভোটাভুটি।

স্পেন প্রধানমন্ত্রী, মারিয়ানো রাহয় বলেন, 'কাতালান সমস্যা সমাধানে সিনেট যেন আমাকে পুরো ক্ষমতা দেয়। যাতে আগামি ৬ মাসের মধ্যে কাতালানে নির্বাচনের ব্যবস্থা করা যায়। আমাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে, কোন ধরনের সহিংসতা ছাড়া কাতালানে শান্তি ফিরিয়ে আনা।' 

তবে, কেন্দ্রীয় সরকারের সরাসরি নিয়ন্ত্রণের পরিকল্পনা না মানার ঘোষণা দিয়েছেন, কাতালান প্রেসিডেন্ট কার্লস পুইজ্জেমন। স্প্যানিশ প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণাকে সেনা অভ্যূত্থানের সামিল বলেছেন কাতালোনিয়ার পার্লামেন্ট প্রেসিডেন্টও।

কাতালানিয়ার আঞ্চলিক প্রেসিডেন্ট, কার্লস পুইজ্জেমন বলেন, ' কোনোভাবেই এই প্রস্তাব গ্রহনযোগ্য নয়। এটা অগণতান্ত্রীক। ১৯৩০-১৯৭৫ সাল পর্যন্ত জেনারেল ফ্রাঙ্কোর স্বৈরশাসনের পর কাতালোনিয়ার স্বাধীনতায় এটাই সবচেয়ে বড় আঘাত। ' 

কাতালান পার্লামেন্ট প্রেসিডেন্ট, কারমে ফর্কাডেল বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাহয়, রাজনৈতিক দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছেন। তার পদক্ষেপ সেনা অভ্যূত্থানের সামিল। কারণ তিনি গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত একটি সরকার উচ্ছেদ করতে চাচ্ছেন।' 

ধারনা করা হচ্ছে, কাতালোনিয়ার পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন স্প্যানিশ এমপিরা। গণতান্ত্রিক স্পেনে গেলো চার দশকের মধ্যে এই প্রথম কোন অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নিতে সাংবিধানিক ক্ষমতা প্রয়োগ করতে যাচ্ছে মাদ্রিদ প্রশাসন।

 

 

 

 

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save