হুমকির মুখে সেন্টমার্টিন | বিজনেস 24

CHANNEL 24



টপ নিউজঃ
Back প্রচ্ছদ বিজনেস 24 হুমকির মুখে সেন্টমার্টিন

হুমকির মুখে সেন্টমার্টিন

 images/news/10-1-2017/saintmarti.png

প্রকৃতির অবাক বিস্ময় সেন্টমার্টিন। কিন্তু দেশের একমাত্র এই প্রবাল দ্বীপে প্রতিনিয়ত হুমকি হয়ে উঠেছে, পর্যটকদের অতিরিক্ত চাপ। কখনো যা দাঁড়ায় ধারণ ক্ষমতার দ্বিগুণে। ফলে, ভারসাম্য হারাচ্ছে এখানকার পরিবেশ।

স্থানীয় হোটেল-মোটেল ব্যবসায়ীরা বলছেন, সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা এবং নীতিমালা না থাকায় বিপর্যয়ের মুখে পড়ছে সেন্টমার্টিন। তবে এরই মধ্যে দ্বীপের উন্নয়নে প্রায় ১৬ কোটি টাকার একটি প্রকল্প নিয়েছে পরিবেশ অধিদফতর।

পাহাড় আর সমুদ্রের এ যেন অদ্ভূত এক মিতালী। সাগরের স্বচ্ছ জলরাশির সশব্দ গর্জন প্রতিনিয়তই বলে চলছে মুগ্ধতার গল্প। দেশের একমাত্র এ প্রবাল দ্বীপে যাওয়ার পথে গাঙচিলের ওড়াওড়ি পূর্ণ করে দেয় ভ্রমণের আনন্দকে। মৌসুম শুরু হয়েছে মাস দুয়েক হলো। তাই বেড়েছে পর্যটকদের আসা যাওয়াও।

প্রকৃতির অবাক বিস্ময়ের মতই সমুদ্রের মাঝখানে হাজার বছর ধরে জেগে আছে সেন্টমার্টিন দ্বীপ। কারো কাছে এর নাম দারুচিনি দ্বীপ। কিন্তু অব্যবস্থাপনা, অসতর্কতা আর অসচেতনতার কারণে এর নিরেট সৌন্দর্য হুমকিতে পড়ছে দিন দিন। গত ১ যুগ ধরে এ দ্বীপে অবস্থান করা এ উদ্যোক্তা মতে, সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকায় ক্রমেই ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ছে এখানকার পরিবেশ।

পরিবেশ অধিদপ্তরের হিসাবে,  এ দ্বীপটি ধারণ করতে পারে সর্বোচ্চ ৪ হাজার মানুষ। অথচ স্থানীয় মানুষের সংখ্যাই ৭ হাজার। এছাড়াও দৈনিক গড়ে অন্তত ১০ হাজার পর্যটক আসা যাওয়া করছে এই ভরা মৌসুমে। ফলে অতিরিক্ত চাপে বাড়ছে পানি ও পরিবেশ দূষণ। যা হুমকি হয়ে উঠছে এই দ্বীপের প্রায় ৬৮ প্রজাতির প্রবালের জন্য। এছাড়া দ্বীপের ভারসাম্যের সাথে সামঞ্জস্য না রেখেই, অপরিকল্পিতভাবে নির্মাণ করা হয়েছে শ খানেক হোটেল ও কটেজ।

অবশ্য সেন্টমার্টিনের বিপর্যয় ঠেকাতে কিছুটা সরব হয়েছে সরকারও। এরই মধ্যে ১৬ কোটি টাকার একটি নতুন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। যা বাস্তবায়ন করা গেলে, অনেক সমস্যাই কাটিয়ে ওঠা সম্ভব বলে জানিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

পর্যটকদের প্রত্যাশা, পরিকল্পনা আর অসচেতনতার কারণে প্রকৃতির এমন নৈসর্গিক রূপ সৌন্দর্য্য যেন বিলীন হয়ে না যায়।