পাহাড় ধসে রাঙ্গামাটি ও কক্সবাজারে নিহত ১২

এক বছরের মাথায় ফের পাহাড়ধসে প্রাণ গেল রাঙ্গামাটিতে। জেলার নানিয়ারচরে চারটি গ্রামে মাটিচাপায় মারা গেছেন নারী-শিশুসহ অন্তত ১১ জন। এখনও নিখোঁজ বেশ কয়েকজন। ঝুঁকিপূর্ণ বসতি থেকে কয়েকশো মানুষকে সরিয়ে নিয়েছে প্রশাসন। খোলা হয়েছে আশ্রয়কেন্দ্র। পাহাড়ধস ও গাছচাপায় দুজন মারা গেছে কক্সবাজারে। বন্যা আর বিচ্ছিন্ন সড়ক যোগাযোগের কারণে একপ্রকার বিপর্যস্ত পার্বত্য এলাকার জনজীবন।

 গতবছরের ১৩ জুন ১২০ জনের মৃত্যুর ক্ষত না শুকাতেই আবারও পাহাড়ধসে প্রাণ গেল রাঙ্গামাটিতে।

টানা দুদিনের প্রবল বর্ষণের মধ্যে নানিয়ারচরে পাহাড়ধসের ঘটনা ঘটে মঙ্গলবার ভোর রাতে। দুর্গম চারটি গ্রামে পাহাড়ের মাটি ধসে চাপা পড়ে অনেক ঘরবাড়ি।

সকালে স্থানীয়রা চাপা পড়া ঘরগুলো থেকে উদ্ধার করে নিহতদের মরদেহ। এরমধ্যে ধর্মচরণ কারবারিপাড়ায় একই পরিবারের চারজন এবং বড়পুলপাড়ায় রয়েছে দুই পরিবারের চারজন। এছাড়া, বাকিরা মারা যান হাতিমারা ও মনতলায়।

একই সময়ে রাঙ্গামাটির আরও অনেক এলাকায় পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। তাই, প্রাণহানি এড়াতে পাহাড় থেকে লোকজনকে সরিয়ে নিচ্ছে প্রশাসন। খোলা হয়েছে ২১টি আশ্রয়কেন্দ্র।

পাহাড়ধসে একজনের প্রাণ গেছে কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার হোয়ানকে। এছাড়া উখিয়ার বালুখালী রোহিঙা ক্যাম্পে গাছ চাপায় আরো একজনের মৃত্যু হয়।

এদিকে, পাহাড়ি ঢলে তলিয়ে গেছে খাগড়াছড়ির অন্তত ২০টি গ্রাম। পানিবন্দী হাজার হাজার মানুষ। সাঙ্গু ও মাতামুহুরির পানি বেড়ে যাওয়ায় প্লাবিত হয়েছে বান্দরবানের অনেক নিচু এলাকা। এছাড়া, পাহাড়ি ঢল ও মাটি ধসে তিন পার্বত্য জেলার অনেক এলাকায় সড়ক যোগাযোগ বিপর্যস্ত। বন্যায় তলিয়ে গেছে চট্টগ্রামের অর্ধশতাধিক গ্রাম।

 

বিএস

Last modified on 12-06-2018 08:12:51 PM

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save