Friday, December 15, 2017

চট্টগ্রামে কদমতলী ট্রাক স্ট্যান্ডের কমিশন বাণিজ্যের দিকে নজর সন্ত্রাসীদের

চট্টগ্রামের কদমতলি ট্রাক স্ট্যান্ডটি যেন টাকার খনি। সারাদেশে পণ্য পরিবহন বুকিংকে ঘিরে এখানে প্রতিদিন লেনদেন হয় প্রায় ২০ কোটি টাকা। কমিশন হিসাবে যার ৪০ লাখ টাকাই যায় ৫শ ব্রোকারের পকেটে। ব্রোকারদের কমিশনের টাকার নিয়ন্ত্রণ নিতে দুই যুবলীগ নেতার অনুসারী কিছু চিহ্নিত সন্ত্রাসী মরিয়া বলে অভিযোগ মিলেছে। যার জেরে খুন হন পরিবহন ব্যবসায়ী হারুন। এ ঘটনায় স্থানীয় ব্যবসায়ীরা চরম আতংকে।

চট্টগ্রাম নগরীর কদমতলি ট্রাক স্ট্যান্ড। যেখানে সবসময় চোখে পড়বে মানুষের সমাগম। শ্রমিক কেনাবেচার হাট মনে হলেও বাস্তবে এরা আসলে পরিবহন ব্যবসার সাথে সংশ্লিষ্ট দালাল। তাদের মাধ্যমেই চট্টগ্রাম থেকে সারাদেশের পণ্য পরিবহনের বুকিং হয়।

দালালরা কমিশনের বিনিময়ে পরিবহন মালিকদের ভাড়া ঠিক করে দেন। এখানেই রোববার প্রকাশ্যে শত শত মানুষের সামনে গুলি করে হত্যা করা হয় পরিবহন ব্যবসায়ী হারুণ চৌধুরীকে। এ ঘটনার পর এখন আতংকিত অন্য ব্যবসায়ীরা।

এই ট্রাক স্ট্যান্ডে প্রতিদিন ভাড়া হয় প্রায় ৮ হাজার গাড়ি। যাতে প্রতিদিন লেনদেন হয় ২০ কোটি টাকার বেশি। যা নিয়ন্ত্রণ করেন প্রায় ৫ শ দালাল। যারা গাড়ি প্রতি ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা কমিশন নিয়ে থাকেন। টাকার অংকে প্রতিদিন যা প্রায় ৪০ লাখ। মূলত দালালদের এই অর্থের নিয়ন্ত্রণ নিতেই এখন মরিয়া বহিরাগত সন্ত্রাসীরা। 

ট্রাক স্ট্যান্ডের নিয়ন্ত্রণ নিতে গেল ২৬ নভেম্বরও সেখানে গোলাগুলি হয়। সেখানে দীর্ঘদিন ধরে এই অস্থিরতার কথা স্বীকার করেছেন স্থানীয় থানার ওসিও।

এদিকে হারুন হত্যায় জড়িতদের শাস্তি ও নিজেদের নিরাপত্তা চেয়েছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। গঠন করেছেন সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ প্রতিরোধ কমিটি।

ট্রাক স্ট্যান্ডের নিয়ন্ত্রণ নিতে মরিয়া যে দুটি গ্রুপ, তারা মূলত দুই যুবলীগ নেতার অনুসারী। ব্যবসায়ী হারুন হত্যার ঘটনায়ও আসামী করা হয়েছে তাদের।

Last modified on 06-12-2017 01:56:26 PM

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save