গাছ কাটার মহোৎসবে মানিকগঞ্জ জেলা পরিষদ 

উপজেলা পরিষদের জায়গায় এলাকাবাসীর লাগানো গাছ তা কাটার টেন্ডার দিয়েছে জেলা পরিষদ।

অংশীদারদের বঞ্চিত করে অনেকটা গায়ের জোরেই এসব করছে মানিকগঞ্জ জেলা পরিষদ। ঠিকাদারদের সাথে যোগসাজসে ১০ কোটি টাকার গাছ মাত্র ১ কোটি ৩৬ লাখ টাকায় বিক্রির  অভিযোগ এলাকাবাসীর। মানিকগঞ্জ-হেমায়েতপুর সড়কের এই গাছগুলো এক সময় যে প্রশান্তির ছায়া দিতো পথিককে, তা এখন অনেকটাই স্মৃতি। উন্নয়নের নামে কেটে ফেলা হয়েছে সড়কের দুপাশের চার হাজারেরও বেশি গাছ। 

এই পথ ধরে ডেফলতলী থেকে সামনের দিকে আগাতেই দেখা যায়, চলছে গাছ কাটার মহোৎসব। হেমায়েতপুর থেকে মানিকগঞ্জ পৌর এলাকার জরিনা কলেজ মোড় পর্যন্ত ৩১ কিলোমিটার আঞ্চলিক মহাসড়ক উন্নয়নে গেলো বছরের শেষে গাছগুলো কাটতে দরপত্র দেয় জেলা পরিষদ। যার সর্বোচ্চ দর ধরা হয় ১ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। কিন্তু এ নিয়ে তীব্র ক্ষোভ এলাকাবাসীর। তারা বলছেন, সামাজিক বনায়ন কর্মসূচির অংশ হিসেবে ৯০ এর দশকে, বেসরকারি একটি সংস্থার তত্ত্বাবধানে গাছগুলো লাগানো হয়। সেসময়  তাদের সাথে চুক্তিও হয় সিঙ্গাইর উপজেলা পরিষদের। সেই অনুযায়ী গাছের বিক্রয়মূল্যের ৬০ শতাংশ পাবার কথা সমিতির সংস্থাটির সদস্যদের। ২০ শতাংশ উন্নয়ন সংস্থা আর অবশিষ্ট ভাগ পাবে উপজেলা পরিষদ। কিন্ত গাছ কাটার সময় এই চুক্তিপত্র কোনো আমলেই নেয়নি জেলা পরিষদ। 

আরো ভয়াবহ অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন এলাকাবাসী। যেখানে গাছপ্রতি বাজার দর ১০ থেকে ৫০ হাজার টাকা, সেখানে নিজস্ব ঠিকাদারদের কাছে তা বিক্রি করা হয়েছে মাত্র তিন হাজার ৬শ টাকা দরে। দরপত্রে গাছের সংখ্যা ৩ হাজার ৭শ ২৫টি বলা হলেও বাস্তবে সাড়ে চার হাজারের মতো। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসব করেছে নিজের সিদ্ধান্তেই। যাদের সাথে চুক্তি, যাদের জমিতে গাছ সেই উপজেলা পরিষদকে জানানো হয়নি কিছুই। পথে দেখা হলো পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে। তবে মানতে নারাজ এসব অভিযোগ। 

 

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save