বাস্তবজীবনে মোজাফফরের 'আয়নাবাজি'

এ যেন আয়নাবাজি সিনেমার গল্প। গাইবান্ধায় শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি নজরুল ইসলাম। তবে, আদালতে নজরুল সেজে হাজিরা দিতে গেছেন, মোজাফফর রহমান নামে এক ব্যক্তি। বিষয়টি চাউর হলে, আসামিপক্ষের আইনজীবীর দাবি, এ সম্পর্কে কিছুই জানেন না তিনি। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চেয়েছে, রাষ্ট্রপক্ষ।

২০১৬ সালের জানুয়ারিতে গাইবান্ধার সাঘাটার নলছিয়া গ্রামে এক শিশুর ধর্ষণ চেষ্টা মামলা হয়, পাশের গ্রামের নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে। আদালত পুলিশকে মামলা তদন্তের নির্দেশ দেন। মিথ্যা মামলা উল্লেখ করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ। তবে বাদিপক্ষে নারাজি আবেদন দেয়ার পর, বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়। এতে ধর্ষণের সত্যতা পাওয়ার পর, নজরুলের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। এরপর থেকেই পলাতক, ওই আসামি।

পরে, গেলো ১০ এপ্রিল হুট করেই পাল্টে যায়, আসামি। অনেকটা আইনাবাজি সিনেমার মতো, মোজাফফর রহমান নামে এক ব্যক্তি নজরুল সেজে আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। করা হয় জামিন আবেদনও। তবে, সেটি খারিজ করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। এরপর থেকেই কারাগারে আছে মোজাফফর।

আসামিপক্ষের আইনজীবীর দাবি, এ ব্যাপারে তাকে কিছুই জানানো হয়নি। এমন পরিস্থিতিতে মামলার মূল আসামি নিয়ে ধোঁয়াশায় গাইবান্ধা জেলা কারাগার কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীর।

আসামি বদল নিয়ে মোজাফফর বা নজরুলের পরিবারের কেউ কথা বলতে রাজি হননি।

Last modified on 02-05-2017 04:16:27 PM

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save