টাঙ্গাইলে নির্বাচন সামনে রেখে সংগঠিত হচ্ছে আওয়ামী লীগ

টাঙ্গাইলে অন্তর্দ্বন্দ্বে কোণঠাসা জেলা বিএনপি। কোন্দলের কারণে রাজপথে দলীয় কর্মসূচিও ঠিকমতো পালন করতে পরছে না দলটি। ফলে আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতিতে সাংগঠনিকভাবে পিছিয়ে বিএনপি। এদিকে, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সোচ্চার, মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলার বিচার দাবিতে। যা দলের মধ্যে এনেছে বিভাজন। তারপরও দলটি নির্বাচন সামনে রেখে চালিয়ে যাচ্ছে নানা কার্যক্রম।

গত ২৪ মে, শামসুল আলম তোফাকে সভাপতি এবং ফরহাদ ইকবালকে সাধারণ সম্পাদক করে, ৩১ সদস্যের টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির কমিটি অনুমোদন দেয় কেন্দ্র। এরপর থেকেই দুটি গ্রুপেরমধ্যে কোন্দল প্রকাশ্য হয়। কেন্দ্রের সব কর্মসূচিই দুগ্রুপ পাল্টাপাল্টি পালন শুরু। এর জেরে সংঘর্ষও বাঁধে।

দলের এই গ্রুপিংয়ে টাঙ্গাইল জেলা বিএনপির তিন প্রভাবশালী নেতা পদত্যাগও করেছেন। যদিও এটিকে তারা কোন্দল নয়, বরং নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা বলে দাবি করছেন।

টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগে দীর্ঘদিনধরে দাপট ছিল, খান ও সিদ্দিকী পরিবারের। তবে মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা মামলায়  চার্জশিটভুক্ত আসামি হবার পর কোণঠাসা হয়ে পড়ে খান পরিবার। স্বস্তিতে নেই বহিষ্কৃত মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীও।

ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরাও মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যার বিচার দাবিতে রাজপথে সোচ্চার। সেইসাথে আগামী নির্বাচনে সামনে রেখে সাংগাঠনিক কর্মকান্ড জোরদার করেছেন মনোনয়নপ্রত্যাশীরও।

একসময় টাঙ্গাইলে বিএনপির শক্ত অবস্থান থাকলেও নিজেদের মধ্যে বিভেদ ও কোন্দল দুর্বল করেছে তাদের। আর দুই পরিবারের ক্ষমতা খর্ব করে গঠিত জেলা আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, দলকে তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠিত করতে।

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save