ভ্যাট মুক্ত সুবিধা নিয়ে মোবাইল হ্যান্ডসেট সংযোজনকারী প্রতিষ্ঠানের উদ্বেগ 

বৈদেশিক মুদ্রার সাশ্রয়, বিনিয়োগ ও কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে গেল বছরে স্থানীয় ভাবে মোবাইল হ্যান্ডসেট সংযোজনে ভ্যাটমুক্ত সুবিধা দিয়ে আবারও তা প্রত্যাহার করেছে সরকার। 

প্রস্তাবিত বাজেটে মাত্র এক বছর আগের দেয়া সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারে শত শত কোটি টাকার বিনিয়োগ নিয়ে উদ্বেগে কয়েকটি মোবাইল হ্যান্ডসেট সংযোজনকারী প্রতিষ্ঠান। তারা অবিলম্বে এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার চান। না হলে উদ্যোক্তারা বিনিয়োগে উৎসাহ হারাবেন বলে তাদের মত। মোবাইল ফোনের বিশাল বাজার এখন বাংলাদেশ। বিটিআরসির তথ্য মতে, সিম গ্রহণের হিসাবে দেশে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ১৫ কোটি। আর প্রতিদিনই বাড়ছে এ সংখ্যা। এমন সম্ভাবনাময় বাজারে সিংহভাগ মোবাইল ফোন সেটই বিদেশ থেকে আমদানি করে পূরণ করা হয়। 

এতে অপচয় হয় বিপুল অংকের বৈদেশিক মুদ্রার। তাই বৈদেশিক মুদ্রার অপচয় কমাতে ও দেশে বিনিয়োগ বাড়াতে স্থানীয় পর্যায়ে মোবাইল হ্যান্ডসেট উৎপাদনে উৎসাহিত করতে গেল অর্থবছরে সরকার অ্যাসেমব্লিং বা সংযোজন প্রতিষ্ঠানকে ভ্যাট মুক্ত সুবিধা দেয়। এ সুবিধার কারণে স্যামসাং, সিম্ফনি ও উইসহ বেশ কয়েকটি ব্র্যান্ড বিনিয়োগে আগ্রহী হয় এবং দ্রুততম সময়ের মধ্যে সংযোজন কারখানা স্থাপন করে। এতে প্রত্যেক কোম্পানীই কয়েক শত কোটি টাকা করে বিনিয়োগ করে। 

তবে ওই সব কারখানায় উৎপাদন শুরুর আগেই মাত্র এক বছরের ব্যবধানে দেয়া সুবিধা প্রত্যাহারের ঘোষণা আসে প্রস্তাবিত বাজেটে। ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে সংযোজন প্রতিষ্ঠানগুলোর ক্ষেত্রে ১৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করা হয়েছে। যার ফলে আমদানির চেয়ে সংযোজন খরচ বেড়ে যাবে তিন শতাংশেরও বেশি। এই নিয়ে উদ্বেগে উৎপাদকরা। এবারের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে শুধুমাত্র দেশে পূর্নাঙ্গভাবে হ্যান্ডসেট উৎপাদনকারী ব্র্যান্ডগুলো ভ্যাটমুক্ত সুবিধা পাবে। অর্থাৎ ডিসপ্লে, ব্যাটারী, চার্জার, চিপসেট, পিসিবি সহ বিভিন্ন যন্ত্রাংশ উৎপাদনে সক্ষমতা থাকতে হবে। এছাড়াও উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে নূন্যতম ৩০ শতাংশ মূল্য সংযোজন করতে হবে।  

ব্যবসায়িরা বলছেন, মাত্র এক বছরের ব্যবধানে নীতিমালা পরিবর্তন করলে, তারা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে এত বিপুল অংকের টাকা এ শিল্পে বিনিয়োগ করতেন না। আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহার না করলে তাদের পুরো বিনিয়োগই ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে আশংকা প্রকাশ করেন তারা। তারা মনে করেন, সরকারের নীতির স্থিতিশীলতা না থাকলে বিনিয়োগে নিরুৎসাহী হবেন উদ্যোক্তারা।

 

বিএস

 

Last modified on 15-06-2018 02:24:58 PM

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save