Friday, December 15, 2017

কমেছে শাকসবজি খাতে রপ্তানি আয়

২০১৪-১৫ অর্থবছর থেকে কমতে শুরু করেছে শাকসবজি খাতে রপ্তানি আয়। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো, ইপিবি'র তথ্যমতে, গেল তিন অর্থবছরের এ খাতে রপ্তানি আয় কমেছে প্রায় ৬২ লাখ ডলার। বিশ্লেষকরা বলছেন, মূলত মান নিয়ন্ত্রণ না করা এবং ফাইটো সেনেটারি সনদ না নিয়ে শাক-সবজি রপ্তানি করায় তৈরী হয়েছে এই নেতিবাচক ধারা। তবে, আলু সহ বিভিন্ন শাক-সবজি মানসম্মত ভাবে রপ্তানি করলে এ খাতের আয় বাড়বে বলেও মনে করছেন তারা।  

 

উর্বর মাটি আর কৃষকের ঘামঝড়া পরিশ্রমে কৃষি প্রধান এ দেশে উৎপাদিত হয় হরেক রকমের সবজি। দেশের চাহিদা পূরণের পাশাপাশি এসব সবজি রপ্তানি হয় বিভিন্ন দেশে। 

স্বাধীনতার পরপরই ১৯৭২-৭৩ অর্থবছর থেকে শাক-সবজি রপ্তানি শুরু করে বাংলাদেশ। প্রথমবার আয় হয় সাত লাখ ১৩ হাজার মার্কিন ডলার। এরপর থেকে প্রতিবছরই বেড়েছে এর পরিমাণ। ১৯৯২-৯৩ অর্থবছরে লাখের ঘর ছাড়িয়ে আয় আসে কোটি ডলারের ঘরে। ২০১৩-১৪ অর্থবছরে সবজি রপ্তানিতে আয় হয় সর্বোচ্চ।   

তবে, এরপর থেকেই শুরু হয় নেতিবাচক ধারা। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো, ইপিবি'র তথ্যমতে, গেল তিন অর্থবছরে এ খাতে রপ্তানি আয় কমেছে প্রায় ৬২ লাখ ডলার। কারণ হিসেবে বিশ্লেষকরা বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন মান নিয়ন্ত্রণ না করার বিষয়ে। 

এছাড়া ইউরোপের বিভিন্ন দেশ ও রাশিয়ায় সবজি হিসেবে আলুর প্রচুর চাহিদা রয়েছে। কিন্তু এখানেও মানহীনতা ও ব্রাউন রট জীবানুর কারণে ২০১৫ সাল থেকে বাংলাদেশের আলু আমদানি বন্ধ রেখেছে রাশিয়া ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলো। 

চ্যানেল 24

387 South, Tejgaon I/A
Dhaka-1208, Bangladesh
Email: newsroom@channel24bd.tv
Tel: +8802 550 29724
Fax: +8802 550 19709

Save

Save

Like us on Facebook
Satellite Parameters
Webmail

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save

Save